Wednesday, February 1, 2023
মূলপাতানেত্রকোনার সংবাদকেন্দুয়া উপজেলাকেন্দুয়ায় একটি মাদরাসায় কয়েকটি পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল

কেন্দুয়ায় একটি মাদরাসায় কয়েকটি পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল

হুমায়ুন কবির, কেন্দুয়া:
নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় রোয়াইলবাড়ি ফাজিল মাদরাসায় কয়েকটি পদে গোপন নিয়োগের প্রক্রিয়ার প্রতিবাদে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল করেছেন।

স্থানীয় লোকজন প্রতিবাদ মিছিলের মাধ্যমে জানান, মাদরাসার গভনিং বডির সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরুল আলম এবং মাদরাসার গভর্নিং বডির সদস্য ইউনিয়ন যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হক। সম্প্রতি গোপনে পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রচার করে নবসৃষ্ট পদে একজন করে অফিস সহকারী কাম হিসাব সহকারী, নিরাপত্তা প্রহরী ও আয়া এবং শূণ্যপদে পরিচন্নতা কর্মী একজন নিয়োগের শেষ প্রক্রিয়া (ইন্টারভিউ) সম্পন্ন করার বিষয়টি জানতে পেরে মাদরাসার গর্ভনিং বডির সদস্য আবুল হাশেম গোপন নিয়োগের প্রতিবাদ করেন।

বিষয়টি পরে স্থানীয়দের মাঝে জানাজানি হলে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরে গত শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে রোয়াইলবাড়ি বাজারে বিক্ষোভ মিছিল করেন স্থানীয় এলাকাবাসী। এ খবর বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার হলে, বর্তমানে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। যে কোনো সময়ে অপ্রীতিকর সৃষ্টি হতে পারে এমনি ধারনা স্থানীয়দের।

এ দিকে মাদরাসার গভর্নিং বডির এক সদস্য আবুল হাশেম জানান, কমিটির সভাপতির পদ নিয়ে আদালতে মামলা চলার পর গত দুমাস আগে আদালত কমিটিকে ১১ মাসের জন্য বৈধতা দেয়।

এরপর সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরুল আলম তিনি, সকল সদস্যদের নিয়ে মিটিং করেন। মিটিংয়ে বলেন দ্রুত সময়ে মাদরাসার পদগুলোতে নিয়োগ সম্পন্ন করতে হবে। এজন্য অন্তত তিনটি মিটিং দেখিয়ে কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পদগুলির জন্য অনুমোদন আনতে হবে।

মিটিং করা হয়েছে আরবী ভার্সিটিকে দেখাতে হবে। তিন মিটিং করা হয়েছে সরল মনে আমরা সকল সদস্য স্বাক্ষর করি। এখন নিয়োগ লাভের জন্য অনেকে আমাদের কাছে আসে আবেদন করার জন্য। আমরা জানি না কোন পত্রিকায় কবে সার্কুলার দেয়া হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানতে পারি মিটিংয়ের জন্য দেয়া স্বাক্ষর দেয়া কাগজ দেখিয়ে নিয়োগ চূড়ান্ত করে ফেলেছে সভাপতি।

এলাকার কেউ নিয়োগ লাভের জন্য গরু বিক্রি করে টাকা সংগ্রহ করছে। তাই এ বিষয়টিকে নিয়ে আমরা এলাকাবাসী প্রতিবাদ করেছি।

এ বিষয়ে জানতে রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) মাদরাসার সভাপতি ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরুল আলম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলে,এটা সম্পূর্ণ ষড়ষন্ত্রমূলকভাবে করা হয়েছে। আমি আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হব, তাই এলাকার একটি মহল। আমার জনপ্রিয়তার বিরুদ্ধে ষড়ষন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। তাই তারা এমন অপপ্রচার চালাচ্ছে। তিনি আরো বলেন,নিয়োগ প্রক্রিয়াটি বর্তমানে স্থগিত রয়েছে। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের পরে আলোচনার মাধ্যামে নিয়োগ প্রত্রুিয়া চালু করা হবে বলে তিনি জানান।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments