Monday, February 6, 2023
মূলপাতানেত্রকোনার সংবাদমোহনগঞ্জ উপজেলানেত্রকোনায় দিনে দুপুরে দোকানে হামলা টাকা লুট

নেত্রকোনায় দিনে দুপুরে দোকানে হামলা টাকা লুট

নেত্রকোনা জেলা শহরের মোহনগঞ্জ বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় দিনে দুপুরে ওএমএসের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে টাকা লুটের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার ( ১১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পৌর শহরের রাজুরবাজার এলাকায় চাল বিক্রির সময় এ ঘটনা ঘটে। এসময় দোকান কর্মচারী স্বাধীন মিয়া ও ফেরাতে আসা টিকিট কাউন্টারের জব্বার আহত হয়েছেন।

এ ঘটনায় বিকালে নেত্রকোনা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন ওএমএসের ডিলার শাহজাহান কবির। পুলিশ সাথে সাথেই অভিযুক্ত যুবক মো. সোহরাব (২২) কে বাহিরচাপরা নিজ বাড়ি থেকে আটক করেছে।
এসময় তার কাছ থেকে লুটের কিছু টাকাও উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এই ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি তদন্ত মো সোহেল রানা বলেন আসামি গ্রেফতার করেছি। কিছু টাকাও উদ্ধার হয়েছে। রবিবার তাকে কোর্টে চালান দেয়া হবে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শহরের রাজুর বাজার এলাকায় ওএমএসের ডিলার শাহজাহান কবিরের দোকানে সপ্তাহে ৬ দিনের মধ্যে তিন দিন করে চাল এবং আটা বিক্রি করা হয়।

এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকাল থেকে চাল বিক্রি করছিলেন শাহজাহান কবির ও কর্মচারী স্বাধীন মিয়া।
সকাল ১১ টা থেকে বাইরে দাঁড়িয়ে থাকা বাহিরচাপরা এলাকার আব্দুল জব্বারের ছেলে সোহরাব দোকানের সামনে চলে আসে। কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে দেখেও। এর এক পর্যায়ে দোকানের পাশে থাকা একটি রড দিয়ে স্বাধীন সহ মালিকের উপর হামলা চালিয়ে টেবিলের গ্লাস ও চেয়ার ভাংচুর করে।

এ সময় ক্যাশে থাকা নগদ ৪০ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনা দেখে জব্বার নামের বাস টিকিট বিক্রেতা ফেরাতে আসলে তার হাত ভেঙে দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

রাজুর বাজার কলেজিয়েট স্কুল মার্কেটে পাশে থাকা দোকানিরা জানান, সোহরাবের বাবা একজন ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালক।

কিন্তু ছেলে কিছুই করে না। ঘুরে বেড়ায়। আর এর তার দোকান থেকে নিয়মিত চাঁদা তুলে খায়। এই এলাকার মানুষ এই একটি যুবকের জন্য আতঙ্কিত থাকেন।

এই ছেলে বিভিন্ন মারামারি মামলা সহ বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর মামলার আসামি বলেও জানায় স্থানীয়রা। শাহজাহান কবির জানান, এর জন্য পুরো এলাকার মানুষ অস্বস্তিতে থাকে। চেয়ে চেয়ে টাকা পয়সা নিয়ে যায়।কেউ প্রতিবাদ করলে বা দিতে না চাইলে কেড়ে নিয়ে যায়। এমন অবস্থা থেকে মানুষ এখন স্বস্তি চায়।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments