Sunday, March 3, 2024
মূলপাতানেত্রকোনার সংবাদদূর্গাপুর উপজেলামায়ের লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দেওয়া কুইন্টার ঘাগ্রা পেল জিপিএ-৩

মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষা দেওয়া কুইন্টার ঘাগ্রা পেল জিপিএ-৩

আল নোমান শান্ত, দুর্গাপুর:
নেত্রকোনার দুর্গাপুরে মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেওয়া সেই কুইন্টার ঘাগ্রা জিপিএ-৩.০০ পেয়েছে। আজ রবিবার দুপুরে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কুইন্টার ঘাগ্রার বড় ভাই জাল সেং ঘাগ্রা।

আদিবাসী কুইন্টার ঘাগ্রা দুর্গাপুর পৌর শহরের আলহাজ্ব মাফিজ উদ্দিন তালুকদার কলেজ থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করেছিল। তার বাড়ি পার্শ্ববর্তী উপজেলার কলমাকান্দা লেঙ্গুড়া ইউনিয়নের ফুলবাড়ি গ্রামে। বাবার নাম লভেস্টার ঘাগ্রা।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে,১৭ আগস্ট কুইন্টার ঘাগ্রার এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। চলতি পরিক্ষার ২৭ আগস্ট সকালে কুইন্টারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি পরিক্ষা ছিল। কিন্তু ওইদিনই ভোরে হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তার মা হেলিমা ঘাগ্রা। তাদের বাড়িজুড়ে যখন চলছিল আহাজারি। সেই সময় মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে দুচোখে জল নিয়েই পরীক্ষার টেবিলে বসেছিল কুইন্টার ঘাগ্রা। পরে পরীক্ষা শেষ করে বাড়িতে ফিরলে মায়ের লাশ সমাধির কাজ সম্পন্ন হয়। কুইন্টার ঘাগ্রা বলেন,আমার রেজাল্ট দেখে যেতে পারল না মা। রেজাল্ট তেমন ভালো হয়নি। তারপরও খুশি আছি।

বড় ভাই জাল সেং ঘাগ্রা বলেন,তার এই ফলাফলে আমরা খুশি হয়েছি। অনেক প্রতিকূলতার মধ্যেও পরীক্ষায় অংশ নিয়ে যা পেয়েছে ভালো করেছে সে। পরীক্ষার সময় মা মারা না গেলে হয়তো সে আরো ভালো করতে পারত।

এ প্রসঙ্গে আলহাজ্ব মাফিজ উদ্দিন তালুকদার কলেজের প্রভাষক নুর মোহাম্মদ বলেন,ছেলেটি অত্যন্ত ভালো। পরীক্ষা চলাকালে ওর মা মারা যান। সেদিন মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে পরীক্ষায় অংশ নেয়। তারপরের বাকি পরিক্ষা গুলো সে খুবই হতাশা নিয়ে দিয়েছে।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments