Friday, June 7, 2024
মূলপাতানেত্রকোনার সংবাদনেত্রকোনা সদর উপজেলাআন্তর্জাতিক নারী দিবসে ব্র্যাকের পথ নাটক সাহসী নারীদের সন্মাননা

আন্তর্জাতিক নারী দিবসে ব্র্যাকের পথ নাটক সাহসী নারীদের সন্মাননা

“টেকসই আগামীর জন্য, জেন্ডার সমতাই আজ অগ্রগণ্য” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আন্তর্জাতিক নারী দিবস ২০২২ উপলক্ষ্যে ব্র্যাক সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা কর্মসূচির আওতায় (সেল্প) দেশব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে ব্র্যাক।

এরই অংশ হিসেবে মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় নেত্রকোনা পৌর শহরের মোক্তারপাড়া পুরাতন কালেক্টর মাঠে ব্র্যাকের উদ্যোগে পথ নাটক ‘ভরসা’ পরিবেশন শেষে একটি র‌্যালি বের হয়ে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। এ সময় র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন নেত্রকোনা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর উপপরিচালক নাজনীন সুলতানা, পৌরসভার প্যানেল মেয়র এস এম মহসিন আলম।

র‌্যালিতে ব্র্যাকের গ্রামীণ সংগঠন পল্লী সমাজ থেকে আসা সদস্যগণ, ছাত্রী স্বাবলম্বী, নারী প্রগতি, শ্রম উন্নয়ন, মহিলা পরিষদ, মহিলা উন্নয়ন কেন্দ্র, জাতীয় মহিলা সংস্থা এবং বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থার প্রতিনিধিগণ অংশ গ্রহন করেন। নেত্রকোনা পথ পরিবেশিত হয়।

পথ নাটক, র‌্যালী ও জেলা প্রশাসক হলরুমে আলোচনা সভা শেষে ব্র্যাক এর বিভিন্ন কর্মসূচির উপকারভোগিদের মধ্য থেকে “ নিজে কাজ করে পরিবার প্রধানের ভূমিকা পালন করে আর্থিকভাবে পরিবারকে পরিচালনা করেছেন যে নারী”; “পরিবার ও সমাজের বাঁধা অতিক্রম করে এগিয়ে চলা নারী ও সমাজে নির্যাতন প্রতিরোধে ভূমিকা রেখেছেন যে নারী এমন তিনজন সাহসী নারীকে ব্র্যাক ‘সামাজিক ক্ষমতায়ন ও আইনি সুরক্ষা’ কর্মসূচি থেকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য হাবীবা রহমান খান (শেফালী)। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক কাজী মোঃ অবদুর রহমান। এ সময় উপস্থিত বিভিন্ন সরকারী বেসরকারি আলোচকবৃন্দ ব্র্যাকের সফল ও সাহসী নারীদের সম্মাননা প্রদানের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, নানামুখী কাজের মাধ্যমে বর্তমানে নারীরা সমাজে ও দেশের উন্নয়নে গুরুত্ত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন।

কর্মক্ষেত্রসহ সমাজের সকল ক্ষেত্রে নারীর এই সাহসী ভূমিকাকে স্বীকৃতি প্রদানের মাধ্যমে নারীর জয়যাত্রাকে অব্যাহত রাখা দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি।

আলোচকবৃন্দ টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সকল ক্ষেত্রে নারী-পুরুষের সমতার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন। এ সময় ব্র্যাক সংস্লিষ্টরা জানান, বিগত ৫০ বছর ধরে নারীর অধিকার, জেন্ডার বৈষম্য দূরীকরণ, নারীর প্রতি সহিংসতা বিলোপ ও নারীর অমিত সম্ভাবনা বিকাশে কাজ করছে। যার প্রয়োজন সবচাইতে বেশি, তার পাশে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দাঁড়ানোই ব্র্যাকের উন্নয়ন দর্শনের ভিত্তি।

তাই ব্র্যাক তার জন্মলগ্ন থেকে নারীকে সমাজ ও রাষ্ট্রের বিভিন্ন স্তরে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন কর্মসূচি কার্যক্রম ও মডেলগ্রহণ করেছে।পাশাপাশি বাংলাদেশের জাতীয় উন্নয়নেও সরকারের বৃহৎ সহযোগী হিসেবে কাজ করছে।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments