Saturday, December 3, 2022
মূলপাতানেত্রকোনার সংবাদনেত্রকোনা সদর উপজেলাইউপি নির্বাচনে হামলা নির্যাতনের অভিযোগ তুলে বিএনপি নেতার সংবাদ সম্মেলন

ইউপি নির্বাচনে হামলা নির্যাতনের অভিযোগ তুলে বিএনপি নেতার সংবাদ সম্মেলন

২য় ধাপে অনুষ্ঠিতব্য আগামী ১১ নভেম্বরের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোমবার সকালে নেত্রকোনায় সংবাদ সম্মেলন করেছে বর্তমান লক্ষীগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা এস এম শফিকুল কাদের সুজা। তিনি নেত্রকোনা সদর উপজেলার লক্ষীগঞ্জ ইউনিয়নে এবারও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। তিনি জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও আওয়ামীলীগ থেকে সম্প্রতি সাময়িক বহিস্কৃত হওয়া সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এস এম বজলুল কাদের শাহজাহানের ছেলে।

সুষ্ঠ নির্বাচনের দাবিতে ও কর্মী-সমর্থকদের উপর হামলা, নির্যাতন এবং হেনস্থার প্রতিবাদে তিনি সোমবার সকাল সাড়ে ১১ টায় নেত্রকোনা জেলা প্রেসক্লাবের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সদর উপজেলার ৬নং লক্ষীগঞ্জ ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান এস এম শফিকুল কাদের সুজা সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

তার লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আজহারুল হক তুহিনের সশস্ত্র কর্মীরা গত ২৭ শে অক্টোবর সুলতানগাতী গ্রামে আমার কর্মীদের উপর হামলা করে ১০/১২জনকে আহত করে।

গুরুতর আহত কমল খানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বাকীদেরকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তুহিনের কর্মীরা ২৮ অক্টোবর লক্ষীগঞ্জ বাজারে আমার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর করে।

২৯ অক্টোবর বিরামপুর বাজারে আমার কর্মীরা নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে গেলে তুহিনের কর্মীরা ধাওয়া করে বাজার থেকে তাড়িয়ে দেয়। তুহিনের সশস্ত্র কর্মীরা ৫ নভেম্বর গদাইকান্দি গ্রামে আমার কর্মী সমর্থকদের নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় অংশ গ্রহন না করার জন্য হুমকি দেয় এবং পিচের মাথা বাজারে আমার সমর্থক ফজলুর চায়ের দোকানসহ আরো কয়েকজনের দোকান পাট বন্ধ করে দেয়।

এছাড়াও তুহিনের স্বশস্ত্র কর্মীরা বাহির থেকে লোক এনে কেন্দ্র দখল করবে বলে এলাকায় প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে এবং আমার কর্মী সমর্থকদের কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য গ্রামে গ্রামে সশস্ত্র মহড়া দিয়ে সাধারণ ভোটারদের ভয়-ভীতি প্রদর্শন করছে। বর্তমানে আমার ইউনিয়নে কোথাও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ বিরাজমান নেই।

তাই লক্ষীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে এবং অধিক ঝুঁকিপুর্ণ বিরামপুর, বেলাটী, হাসামপুর, লক্ষীগঞ্জ ও বায়রাউড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র গুলোতে অধিক সংখ্যক আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করার জন্য সাংবাদিকদের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনের কাছে জোর দাবী জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, ইউনিয়নটিতে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীক নিয়ে মো. আজহারুল হক তুহিন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চশমা প্রতীকে বিএনপি নেতা বর্তমান চেয়রম্যান এস এম শফিকুল কাদের সুজা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। ইউনিয়নে মোট ভোটার রয়েছেন ১৪৩৯৮ জন।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments