Thursday, June 20, 2024
মূলপাতানেত্রকোনার সংবাদকেন্দুয়া উপজেলাকৃষিতে সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের মাধ্যমে খরচ কম

কৃষিতে সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের মাধ্যমে খরচ কম

হুমায়ুন কবির, কেন্দুয়া:
‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের মাধ্যমে কৃষি সেচ প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য কৃষকদের সাথে ইতিমধ্যে
কেন্দুয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

কেন্দুয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মজিবুর রহমান জানান,বিদ্যুতের উপর চাপ কমাতে কম খরচে কৃষকদের দোড় গোড়ায় বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছে দিতে সৌর বিদ্যুৎ এর মাধ্যমে সেচ প্রকল্প চালুর জন্য
উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নে গিয়ে কৃষকদের সাথে মতবিনিময় সভার মাধ্যমে জানানো হয়েছে। এতে কম খরচে সেচের জন্য সৌর বিদ্যুৎ ব্যাবহার করলে কৃষকরা লাভবান হবেন।

তিনি আরো জানান, মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশক্রমে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড (বাপবিবো) জিওবি, বাপবিবো ও এডিবি অর্থায়নে কৃষক ভাইদের সার্বিক উন্নয়নের কথা বিবেচনা করে কৃষকদের মাঝে সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পিং সিস্টেমের বিস্তারের জন্য বিশেষ অনুদান দিয়ে অত্যন্ত কম মূল্যে সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্প বিক্রয়ের প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

এই প্রকল্পের অধীনে কেন্দুয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির আওতাধীন এলাকার বিভিন্ন ক্যাটাগরির সৌর বিদ্যুৎ চালিত অগভীর সেচ পাম্প স্থাপন কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
পাশাপাশি সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের মাধ্যমে কৃষি সেচ প্রকল্পের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার দিকগুলোও তিনি তুলে ধরে জানান।
উন্নতমানে সোলার প্যানেল, ইনভারটার ও পাম্প ব্যবহৃত হবে বিধায় এই পাম্প সিস্টেম দীর্ঘস্থায়ী ও টেকসই হবে। অন্তত ২০ বছর আর কোন খরচ লাগবে না।

তাছাড়া সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পটি চালানোর জন্য
স্থানীয়ভাবে একজন ব্যাক্তিকে কারিগরি প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দক্ষ করে তোলা হবে। যেন তিনি দ্রুততম সময়ে সেবা দিতে পারেন।

পাশাপাশি কৃষকদের সৌর বিদ্যুৎ স্থাপিতব্য সৌর প্যানেল জাতীয় গ্রীডের সাথে সংযুক্ত করা হবে। এক্ষেত্রে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ বিক্রির জন্য প্রয়োজনীয় ২০০ মিঃ লাইন ও ইনভার্টার স্থাপন, নিরাপত্তা কাঁটাতারের বেষ্টনী নির্মাণ অত্র প্রকল্প হতে করা হবে। এতে করে কৃষক বেশি লাভবান হবেন।

তিনি আরো জানান, সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের ঠিকাদার কর্তৃক পাঁচ বছরের ওয়ারেন্টি প্রদান করা হবে (প্যানেল, পাম্প, মোটর, ইনভার্টার মাউন্টিং স্ট্রাকচার, বোরহোল, পাইপ ইত্যাদি সহ সম্পূর্ণ সিস্টেম এর ২ বছর রিপ্লেসমেন্ট এবং তিন বছর রিপেয়ার) করা হবে।

এছাড়াও সোলার পাম্প ক্রয়ের ক্ষেত্রে ডিজেল চালিত পাম্পের মালিকগণ,আগ্রহী মহিলা,৫০ বছরের নীচে গ্রহকদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

কেন্দুয়া পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মজিবুর রহমান সোমবার (১১আক্টোবর) জানান, ইতিমধ্যে আমরা ৩৮টি সৌর বিদ্যুৎ চালিত পাম্পের জন্য আবেদন পেয়েছি। আবেদন গুলি যাচাই বাছাইয়ে জন্য উপজেলা সেচ কমিটির কাছে পাঠানো হয়েছে। অনুমোদন হলে ঠিকাদারের মাধ্যমে সোলার পাম্প স্থাপন করার কাজ শুরু করা হবে।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments