Tuesday, November 29, 2022
মূলপাতানেত্রকোনার সংবাদনেত্রকোনা সদর উপজেলানেত্রকোনায় এই প্রথম উত্তোলিত কালো পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবে নামালো মুক্তিযোদ্ধা সেক্টরস কমান্ডারস...

নেত্রকোনায় এই প্রথম উত্তোলিত কালো পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবে নামালো মুক্তিযোদ্ধা সেক্টরস কমান্ডারস ফোরাম

শোকাবহ আগস্ট মাসে এই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তোলিত কালো পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবেই নামানো হয়েছে নেত্রকোনায় মঙ্গলবার সন্ধায় নেত্রকোনা সেক্টরস কমান্ডারস ফোরাম, মুক্তিযুদ্ধ ৭১ কমিটির উদ্যোগে বড় বাজার নিজস্ব কার্যালয়ে এ উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

নেত্রকোনা উদীচী শিল্পী গোষ্ঠির পরিবেশনায় বিভিন্ন গণ সংগীত পরিবেশন শেষে আগস্ট মাসের শেষদিনে ঠিক সন্ধ্যা ৬ টা ৩০ মিনিটের সময় উত্তোলনের মতোই সন্মানের সাথে আয়োজন করে পতাকা নামানো হয়।

পতাকা নামিয়েছেন সেক্টরস কমান্ডারস ফোরাম মুক্তিযুদ্ধ ৭১ এর সভাপতি ও সাবেক জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং মুক্তিযুদ্ধকালীন উইং কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মো.শামছুজ্জোহা। এসময় অন্যান্য মুক্তিযোদ্ধা ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। পরে কার্যালয়ের নিচ তলায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সেক্টরস কমান্ডারস ফোরামের সাংস্কৃতিক সম্পাদক শিল্পী ভাট্টাচার্য্যের সঞ্চালনায় সংগীত পরিবেশন করেছে জেলা উদীচী শিল্পীবৃন্দ।

পরে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেছেন সেক্টরস কমান্ডারস ফোরামের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মো. শামছুজ্জোহা।
এসময় বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়ে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সম্পাদক এডভোকেট সিতাংশু বিকাশ আচার্য্য, সভাপতি মন্ডলীর সদস্য বীর মুৃক্তিযোদ্ধা হায়দার জাহান চৌধুরী, সাবেক সদর কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা আইয়ূব আলী, লেখক সাহিত্যিক অধ্যাপক ননী গোপাল সরকার, ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক মোর্তুজা হোসেন কামাল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শিল্পী ভট্টাচার্য্য, শিক্ষক মানিক রায়, মহিলা লীগের নেত্রী অনিতা নন্দী প্রমুখ।

এ সময় মুক্তিযোদ্ধা মো. শামছুজ্জোহা বলেন, বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর ডাকে আমরা দেশ স্বাধীন করতে ঝাপিয়ে পড়েছিলাম। এই আগস্ট মাসে হায়েনাদের দল বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করে। এরপর থেকে এই মাসকে জাতি শোকের মাস হিসেবে পালন করে। শোকের মাসে আমরা মুক্তিযোদ্ধারা সন্মানের সাথে যেমন কালো পতাকা উত্তোলন করেছি তেমনি সন্মানের সাথেই নামানো উচিৎ বলে আমি মনে করি। কর্মচারী দিয়ে পতাকা নামালে অসম্মান হবে বলে আমরা ধারণা করি। তাই নিজেরা পতাকা উত্তোলন করে নিজেরাই মাসের শেষের দিনে নামিয়েছি উত্তোলনের দিনের মতো আয়োজন করে। তিনি আরো বলেন, মাথার উপরে যা সন্মান করে রাখা হয় তা যেনো নামানোর সময়ও সন্মানের সাথে করা হয়। তাহলে শ্রদ্ধা ভালোবাসা অটুট থাকে। তা না হলে শুধু একদিন পতাকা উত্তোলন করলাম ঘটা করে পরে আর মনে রাখলাম না। সেটি নামানোর সময় যত্রতত্র নামানো ঠিক না।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments