Homeসংবাদদূর্গাপুর উপজেলানেত্রকোনায় সামাজিক নিরাপত্তা রক্ষায় অনৈতিক কাজের প্রতিবাদে মানববন্ধন

নেত্রকোনায় সামাজিক নিরাপত্তা রক্ষায় অনৈতিক কাজের প্রতিবাদে মানববন্ধন

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে সামাজিক নিরাপত্তা রক্ষায় এলাকায় অনৈতিক কাজের প্রতিবাদে দুর্গাপুরে মানব্বন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে বৈরী আবহাওয়া উপেক্ষা করেই উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানব্বন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে এলাকাবাসী।

এসময় অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকায় আশ্রয়ন প্রকল্পে থাকা দুই বোন ফাতেমা খাতুন ও তার কুলসুমা খাতুনকে সরকারি জায়গা থেকে বিতাড়িত সহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান তারা। এতে উপজেলার জনপ্রতিনিধিসহ চর মোক্তারপাড়া এলাকার শতাধিক নারী-পুরুষ অংশ নেন।

এর আগে মানববন্ধনকারীরা পৌর শহরের দক্ষিণপাড়া মোড় থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে পৌর শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এসে শেষ হয়।

পরে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচিতে দুর্গাপুর পৌরসভার ৪,৫,৬ ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর বিউটি আক্তার, আনিসুল হক সুমন, মানিক মিয়া, বিজন সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ ও তরুণরা বক্তব্য রাখেন।

এ সময় তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে প্রভাবশালী কিছু মানুষের ছত্রছায়ায় থেকে ফাতেমা খাতুন পৌরশহরের মোক্তারপাড়া এলাকায় অসামাজিক কাজের একটি আস্তানা গড়ে তুলেছেন। ফলে সমাজের অসহায় ও গরীব কিশোরীদের জিম্মি করে এসব অনৈতিক কাজে বাধ্য করছে।

বিভিন্ন এলাকা থেকে কাজের কথা বলে এনে কিশোরীদের দিয়ে ব্যাবসা করে যাচ্ছে তারা দুই বোন। এতে এলাকার উঠতি বয়সের যুব সমাজকেও ব্যবহার করছে। এসবের সাথে রয়েছে মাদকের ব্যাবসাও। ফলে কিশোর যুবা তরুণরা বিপথগামী হচ্ছে।

তাছাড়াও কিশোরীদের দিয়ে যুবকদের ফাঁদে ফেলে ব্ল্যাকমেইল সহ এলাকায় নানা ঘটনাও ঘটাচ্ছে প্রতিনিয়ত। ফলে পৌরশহরের মুজিবনগর আশ্রয়ন প্রকল্পের প্রতি সাধারণ মানুষের মনে খারাপ দৃষ্টিভঙ্গি সৃষ্টি হয়েছে। যে কেউ এসবের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গেলেই তাদেরকে নির্যাতিত ও নিপীড়িত হতে হয়।

দেখানো হয় নারী নির্যাতন সহ বিভিন্ন মামলার ভয়। তাই সমাজের অবক্ষয় রোধে ও কিশোর-কিশোরীদের রক্ষায় সরকারি জায়গা থেকে অনৈতিক কাজে জড়িতদেরকে বিতাড়িত সহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন তারা।

উল্লেখ্য, গত ১৬ সেপ্টেম্বর এক কিশোরী ওদের আস্তানা থেকে পালিয়ে পুলিশের কাছে আশ্রয় নিয়ে মামলা করে থানায়৷ কিশোরকে কাজের কথা বলে এনে আটকে রেখে অনৈতিক কাজে বাধ্য করানোর ঘটনায় মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ ফাতেমাকে আটক করে। সেইসাথে উদ্ধার হওয়া কিশোরীকে ঢাকায় বোনের বাসায় পাঠায়।

এদিকে আগের দিন আটক করে গত শুক্রবার কোর্টে পাঠায়। তার বিরুদ্ধে থানায় এসবের একাধিক মামলা রয়েছে। এলাকায় এমন অনৈতিক কাজ করে দাপটের সাথে চলেন অদৃশ্য শক্তির বলয়ে সেইসাথে হুমকিতে রাখেন এলাকাবাসীকে।

RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -spot_img

সাম্প্রতিক সংবাদ