Tuesday, April 23, 2024
মূলপাতাঅন্যান্যজীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ছাত্রদের বাপ্পি

জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ছাত্রদের বাপ্পি

দলের অভ্যন্তরীন কোন্দলের জেরে নেত্রকোনায় পৌর ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান বাপ্পিকে (৩০) নৃশংস ভাবে হত্যা চেষ্টায় হাতপায়ের রগ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। যে কারনে জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ঢাকার শ্যামলী হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে কাতরাচ্ছেন।

মুমূর্ষ অবস্থায় আহত নেতার একটি ভিডিওতে মশিউর রহমান বাপ্পীকে বলতে শোনা গেছে জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক অনিক মাহবুব চৌধুরী ও তার অনুসারী আনজুল, সোহাগ, কান্দির সুমনসহ ১৫-২০ জন তার উপর হামলা করে কিভাবে কুপিয়েছে।
দীর্ঘদিন ধরে নেত্রকোনাসহ দেশবাসী মৃত্যু নিশ্চিতে এমন রগ কেটে দেয়ার নৃংশস ঘটনা অনেকটাই ভুলে গেলেও দীর্ঘদিন পর পুনরাবৃত্তি ঘটায় জনমনে আতংক বেড়েছে। জড়িতদের গ্রেফতার করে দ্রæত বিচার আইনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্থির দাবী করেছেন স্থানীয়সহ বাপ্পীর স্বজনরা।
নেত্রকোনা সদর উপজেলার কাইলাটি ইউনিয়নের অনন্তপুর গ্রামে গত বুধবার রাতে এমন নৃংশস হামলার ঘটনা ঘটে। বাপ্পী নেত্রকোনা পৌর শহরের কুরপাড় এলাকার বাসিন্ধা ও আটপাড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি আব্দুল মান্নান মনু প্রফেসরের একমাত্র ছেলে। বাপ্পী আগামীতে নেতৃত্বে ভাইটাল পদ পাওযার কথা ছিলো বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।
পুলিশ, স্থানীয় এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে, বাপ্পী গত বুধবার রাতে সদর উপজেলার অনন্তপুর গ্রামের বশির উদ্দিন চিশতির মাজারে ওরস শরীফ যান। রাত ১২টার দিকে নিজ বাসায় ফেরার পথে দূবৃর্ত্তদের হামলার শিকার হন। হামলাকারীরা তার হাত ও পায়ের রগ কেটে মাথা, মুখ পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করে। তখন তার ডাক চিৎকারে গ্রামের মানুষ আসতে দেখে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা। স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রথমে নেত্রকোনা হাসপাতালে ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এক পর্যায়ে ঢাকা শ্যামলী হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে প্রেরন করা হয়। এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের সাথে কথা বলতে যোগাযোগের চেষ্টা করলে ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সারোয়ার আলম এলিন জানান, দলের এই ক্রান্তিলগ্নে নিবেদিত কর্মী মশিউর রহমান বাপ্পীর ওপর দলীয় কর্মীদের এমন নৃশংস হামলা লজ্জা জনক। ন্যাক্কারজনক এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও বিচার দাবি করেন তিনি।
নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, হামলার বিষয়টি শোনেছেন। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments