Monday, February 6, 2023
মূলপাতাকৃষি সংবাদনেত্রকোনার দুগার্পুরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কমলার চাষ

নেত্রকোনার দুগার্পুরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কমলার চাষ

অল্প খরচে লাভ বেশী হওয়ায় নেত্রকোণার দুগার্পুরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কমলার চাষ। এখানকার উৎপাদিত কমলা এখন স্থানীয় চাহিদা মিটিয়েও যাচ্ছে রাজধানী ঢাকা সহ বিভিন্ন স্থানে।

এরইমধ্যে দূর্গাপুরের সফল চাষী নিকাশ মানকিনের কমলা বাগান দেখে উৎসাহীত হচ্ছেন স্থানীয়রা।সীমান্ত উপজেলা দূর্গাপুর ও কলমাকান্দার প্রধান ফসল ধান হলেও বর্তমানে অল্প খরচে লাভ বেশী হওয়ায় ধানের পাশাপাশি পাহাড়ি এলাকাগুলোতে কমলা চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন এখানকার উপজাতি চাষীরা।

দূর্গাপুরের সীমান্ত এলাকা গোপালপুরে বসত বাড়ির আঙ্গিনায় ২০০৭ সালে ১ একর জায়গায় আড়াইশত চারা গাছ রোপন করে গেল ৭ বছর ধরে প্রতি বছরই ভালো ফলন পাচ্ছেন উপজাতি কৃষক নিকাশ মানকিন।

তার এই সফলতা দেখে উৎসাহীত হচ্ছেন স্থানীয় আরো অনেকেই। বাজারে স্থাণীয় জাতের সুস্বাদু এ কমলার চাহিদা ভালো থাকায় বাণিজ্যিক ভাবে এখন বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে কমলার চাষ।

আবহাওয়া ও জমির মাটি ভালো হওয়ায় সরকারী বেসরকারী সহযোগীতা পেলে ব্যাপক ভাবে কমলার চাষ সম্ভব জানান স্থানীরা। ধান উৎপাদনে খরচ বেশী হওয়ায় ধানের বিকল্প হিসেবে এখন কমলা চাষকেই বেছে নিচ্ছেন পাহাড়ি কৃষক কৃষানীরা।

পাশ্ববর্তী দেশ ভারতের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, মেঘালয়সহবিভিন্ন স্থানে উৎপাদিত কমলাই দেশের চাহিদা মিটিয়ে আসছিলো। পাহাড়ি অঞ্চলগুলোতে কমলা ও মাল্টার চাষ বৃদ্ধি করতে নানা উদ্যোগ গ্রহন করেছে জেলা কৃষিবিভাগ।

কৃষি বিভাগের তথ্যমতে, সীমান্ত উপজেলা কলমাকান্দা ও দূর্গাপুরে এ পর্যন্ত প্রায় ২০ একর জমিতে কমলার চাষ হয়েছে। ভবিষ্যতে সীমান্ত এলাকার মানুষের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিতে কমলা চাষ ব্যাপক ভূমিকা রাখবে। এমটাই প্রত্যাশা স্থানীয়দের।

এই বিভাগের আরও সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

সর্বশেষ সংবাদ

Recent Comments